সুনামগঞ্জে আলোচিত দুটি ধর্ষণ মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

সুনামগঞ্জে আলোচিত দুটি ধর্ষণ মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

বিশেষ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জে আলোচিত দুটি ধর্ষণ মামলার ৫ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও একলাখ টাকা জরিমানা এবং অপর ১জনকে ১৪ বছরের কারাদন্ডে দন্ডিত করেছেন। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক মোঃ জাকির হোসেন বৃহস্পতিবার দুপুরে আসামীদের উপস্থিতিতে আদালত এ রায় ঘোষণা করেন। যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রাপ্তরা হলেন বিশ^ম্ভরপুর উপজেলার মল্লিকপুর গ্রামের আনোয়ার হোসেন খোকন, তাহিরপুর উপজেলার সাহিদাবাদ গ্রামের শফি উল্লাহ, ছাইদুর রহমান ও শফিউল, ছাতক উপজেলার মোহনপুর গ্রামের ইকবাল হোসেন।
আদালত সুত্রে জানা যায়, ২০১২ সালের আগস্ট মাসে বিশ^ম্ভরপুর দীগেন্দ্র বর্মণ ডিগ্রী কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ও একটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার কর্মীকে বাড়িতে যাওয়ার পথে আনোয়ার হোসেন জোরপুর্বক মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে গিয়ে তাহিরপুর উপজেলার লাউরেরগড় এলাকায় ধর্ষণ করে। পরে আনোয়ারকে বেঁধে রেখে সাহিদাবাদ গ্রামের শফি উল্লাহ, ছাইদুর রহমান ও শফিউল মেয়েটিকে জোরপুর্বক গণধর্ষণ করে ভিডিও ধারন করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়।
এঘটনায় ভিকটিম বাদী হয়ে ১১ জনকে আসামি করে তাহিরপুর থানায় মামলা দায়ের করলে উক্ত মামলায় ৪ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ৪ জনকে খালাস প্রদান করে আদালত। বাকি তিনজন আসামীর নাম তদন্তে প্রমাণিত না হওয়ায় পুলিশের অভিযোগপত্র থেকে বাদ দেয়া হয়।
আরেকটি মামলায় ২০১২ সালের ১৭ মার্চ ছাতক উপজেলার মাহনপুর গ্রামের তের বছরের কিশোরীকে রাতে ইকবাল ও জয়নাল আবেদীন জোরপুর্বক অপহরণ করে সিলেটে নিয়ে যায়। সেখানে আসামি ইকবাল হোসেন মেয়েটিকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। এঘটনায় নির্যাতিতার চাচা চমক আলী বাদী হয়ে ছাতক থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।ওই মামলায় আসামি ইকবাল হোসেনকে যাবজ্জীবন ও জয়নাল আবেদীনকে ১৪ বছরের কারাদন্ড প্রদান করেছেন আদালত।
নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের পিপি নান্টু রায় সুনামগঞ্জ প্রতিদিনকে ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ডের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আদালতে বাদী পক্ষরা ন্যায় বিচার পেয়েছেন।
আসামী পক্ষের আইনজীবীরা বলেন, আদালতে আসামি পক্ষ ন্যায় বিচার পায়নি। তারা উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *