চলন্ত বাসে ছাত্রী ধর্ষণচেষ্টা : বাস চালকের ৫ বছরের কারাদন্ড

চলন্ত বাসে ছাত্রী ধর্ষণচেষ্টা : বাস চালকের ৫ বছরের কারাদন্ড

বিশেষ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে চলন্ত বাসে কলেজছাত্রী ধর্ষণচেষ্টা মামলায় বাসচালক শহীদ মিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদ- দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এ সময় বাকি দুই আসামি বাসের হেলপার রশিদ মিয়া ও কন্ডাক্টর আবু বকরকে খালাস দিয়েছেন আদালত।
বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বর) দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জাকির হোসেন এ রায় দেন।
সুনামগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট নান্টু রায় সুনামগঞ্জ প্রতিদিনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
জানা যায়, ২০২০ সালের ২৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় সিলেট থেকে ছেড়ে আসা দিরাইগামী একটি যাত্রীবাহী বাসে (সিলেট জ-১১০৭২৩) আসছিলেন এক কলেজছাত্রী। দিরাই পৌরশহরের সুজানগর এলাকায় আসার পর তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়। সম্ভ্রম বাঁচাতে একপর্যায়ে চলন্ত বাস থেকে লাফ দিয়ে সড়কের পাশে পড়ে যান ওই ছাত্রী। পরে স্থানীয়রা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠান। এ ঘটনা সুনামগঞ্জ জেলাসহ দেশব্যাপী আলোচনার জন্ম দেয়।
এ ঘটনায় ২৭ ডিসেম্বর রাতে ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে বাসচালক শহীদ মিয়া ও হেলপার রশিদসহ অজ্ঞাত পরিচয় তিনজনের বিরুদ্ধে দিরাই থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। বিচারিক কার্যক্রম শেষে আজ বৃহস্পতিবার আদালত উল্লেখিত রায় প্রদান করেন।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *