Breaking News

জামালগঞ্জে ঝড়ে ঘরবাড়ি ও দোকান লন্ডভন্ড

জামালগঞ্জে ঝড়ে ঘরবাড়ি ও দোকান লন্ডভন্ড

জামালগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলায় কালবৈশাখী ঝড়ে ঘরবাড়ি, দোকান, বিদ্যুতের খুঁটি ও তার ছিড়ে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। শুক্রবার রাত অনুমান সাড়ে ১০টায় হঠাৎ প্রচ- বেঙ্গে ঝড়ো হাওয়া ও বৃষ্টিতে উপজেলার কয়েকশ’ ঘর ও বাজারের দোকানপাট ও বিদ্যুতের খুঁটি পড়ে যায়। এছাড়াও দোকান ও বসতবাড়ির মালামাল বৃষ্টিতে ভিজে এবং গাছপালা পড়ে অনেক ক্ষতি সাধিত হয়েছে।
ভীমখালী ইউনিয়নের নোয়াগাঁও বাজারের মুদিব্যবসায়ী সাজিবুর রহমান বলেন, আমার দোকান ঘূর্ণিঝড়ে উড়িয়ে নিয়ে গেছে এবং দোকানের মালামাল সব বৃষ্টিতে ভিজে নষ্ট হয়ে গেছে। এতে আমার প্রায় ২ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।
জামালগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নের ধানুয়াখালী গ্রামের শমসের আলী জানান, ঘূর্ণিঝড়ে আমার বসতঘর উড়িয়ে নিয়ে যায় এবং সমস্ত মালামাল বৃষ্টিতে ভিজে প্রায় দেড় লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।
ফেনারবাঁক ইউনিয়নের ভূতিয়ারপুর গ্রামের কৃষক মকবুল হোসেন জানান, রাতের ঝড়ে আমার তিন কিয়ার জমির পাকা ধান নুয়ে পড়ে। এতে আমার অনেক ক্ষতি হয়েছে।
উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন পরিষদের তথ্য অনুযায়ী, ফেনারবাঁক ইউনিয়নে ২৫টি, ভীমখালী ইউনিয়নে ৩৫টি, জামালগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নে ৬৫টি, বেহেলী ইউনিয়নে ৭৫টি, সাচনা বাজার ইউনিয়নে ২৫টি এবং জামালগঞ্জ সদর ইউনিয়নে ৬০টির মতো ঘর পুরোপুরী ও আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
জামালগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সাবস্টেশনের ইনচার্জ মো. রবিউল ইসলাম বলেন, গত রাতে প্রচ- ঝড়ে ৩৩ কেবি লাইনের সংযোগ বন্ধ হয়ে যায়। যার কারণে রাত থেকে এখন পর্যন্ত জামালগঞ্জে বিদ্যুৎ সংযোগ স্বাভাবিক করা সম্ভব হয়নি। আশা করি সন্ধ্যার মধ্যে বিচ্ছিন্নকৃত লাইন মেরামত হলে উপজেলা সদরের আশেপাশে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া সম্ভব হবে। তবে দূরবর্তী স্থানে কাজ চলায় বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে একটু বিলম্ব হবে।
এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. এরশাদ হোসেন বলেন, গত রাতে ঘূর্ণিঝড়ের ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানদের নিকট তালিকা চাওয়া হয়েছে। তালিকা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.