1. newsjibon@gmail.com : adminsp :
শাল্লায় স্মার্ট ওয়ার্ক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ - সুনামগঞ্জ প্রতিদিন
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১২:৪৫ অপরাহ্ন

শাল্লায় স্মার্ট ওয়ার্ক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ

  • বৃহস্পতিবার, ২৫ মে, ২০২৩
  • ৯৯ বার পঠিত
Spread the love

শাল্লা প্রতিনিধি: শাল্লায় এনজিও সংস্থা নামে পরিচিত “ঝসধৎঃ ওহঃবৎহধঃরড়হধষ খঃফ” এর বিরুদ্ধে ২৮ জন ভুক্তভোগীর স্বাক্ষরিত কাগজে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন উপজেলার কান্দখলা গ্রামের সীতা রানী দাস ৷ । ২৫ মে বৃহস্পতিবার ২টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগটি দায়ের ওই ভুক্তভোগীরা। অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন “ঝসধৎঃ ওহঃবৎহধঃরড়হধষ খঃফ” এর শাল্লা ব্যবস্হাপক উপজেলা গোবিন্দপুর গ্রামের ঝলক চন্দ্র দাশ বিভিন্ন সময়ে দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্নভাবে সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা করে ঘর,নলকূপ,সেলাই মেশিন,গরু-ছাগল,হাঁস-মুরগি ও চিকিৎসা সেবা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে এলাকার সাধারণ মানুষের কাছ থেকে হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়ে যায়। শাল্লা
কলেজ রোডে ইছাক মিয়ার বিল্ডিংয়ে পূর্বে অবস্থানরত বর্তমানে তাদের অফিস বন্ধ রয়েছে। তাই তারা নিরুপায় হয়ে আইনগত সহায়তা পাওয়ার জন্য শাল্লা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ দায়ের করেছেন।
কান্দখলা গ্রামের সেবিকা রানী দাশ বলেন ঝলক আমাদেরকে অনেক লোভ-ললসা দেখিয়ে,ঘরবাড়ি,হাঁস-মুরগি ও চিকিৎসা বাবত টাকা দেবে বলে প্রতারণা করে আমার কাছ থেকে ১২’শ টাকা নিয়ে যায়। আমরা গ্রামের সহজসরল মানুষ না বুঝে ঝলকের দেখানো লোভে পড়ে যাই। তিনি বলেন ঝলকে এখন আর খোঁজে পাওয়া যাচ্ছে না ও তার সাথে থাকা স্ট্যাফরা আমাদের সাথে যে প্রতারণা করেছে আমরা তার সঠিক বিচার চাই। ভুক্তভোগী দীপ্তি রানী দাস বলেন ঝলকে আমরারে কইছে হাস দিব, ছাগল দিব, ঘর দিব ও কল (টিউবওয়েল) দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে আমার কাছ থেকে ২৪’শ টাকা নিছে। তিনি বলেন আমরা প্রতারক এই ঝলক ও ভূঁইফোড় কোম্পানির সঠিক বিচার চাই। জানা যায় এনজিও সংস্থার নামে ২০২০ সালে স্মার্ট ওয়ার্ক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের নামে শাল্লায় কলেজ রোডে ইছাক মিয়ার বিল্ডিংয়ে একটি অফিস কক্ষ ভাড়া নেন শাল্লা শাখার ব্যবস্হাপক ঝলক চন্দ্র দাশ। এরপর থেকে বিভিন্নভাবে প্রতারণা করে উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় প্রায় ৪-৫ শ গ্রাহক বানিয়ে নেন ঝলক সহ তার অফিসে চাকুরীরত ১০-১২ জন স্ট্যাফের লোকেরা। প্রাথমিকভাবে শুধু গ্রাহক ভর্তি ফ্রি হিসেবে “গড়হবু জবপবরঢ়ঃ” একটি স্লিপে প্রত্যেক গ্রাহকের কাছ থেকে জনপ্রতি ১২’শ করে টাকা নেন স্মার্ট ওয়ার্ক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের শাল্লা শাখার ব্যাবস্হাপক ঝলক চন্দ্র দাস। শুধু তাই নয় সদস্য ভর্তি করেই তারা গ্রাহকদেরকে নানাধরণের সুযোগসুবিধা দেওয়ার কথা বলে ৫’শ,১ হাজার,২ হাজার করে এভাবে অনেক টাকা হাতিয়ে নিয়ে যায়।
তবে অভিযুক্ত ঝলক চন্দ্র দাসের মুঠোফোনের উল্লেখিত (০১৭১০৭৩২০৭৯,০১৬১৩১০০২১৪) এই দুটি নাম্বার বন্ধ পাওয়ায় তার কোন বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবু তালেব বলেন এ বিষয়টি আমি আগে থেকেই জানি। নোটিশ জারি করে অভিযুক্ত ঝলককে আমার অফিসে হাজির হওয়ার জন্য ডাকা হবে। তিনি বলেন আমি ওসি সাহেবের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


Spread the love
এই বিভাগের আরো খবর

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: জুনায়েদ চৌধুরী জীবন

© All rights reserved © সুনামগঞ্জ প্রতিদিন
Theme Customized BY LatestNews
error: Content is protected !!