1. newsjibon@gmail.com : adminsp :
শান্তিগঞ্জে ঠিকাদারের গাফিলতিতে বন্ধ বিদ্যালয় ভবণ ও রাস্তার নির্মাণ কাজ - সুনামগঞ্জ প্রতিদিন
বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৩৩ অপরাহ্ন

শান্তিগঞ্জে ঠিকাদারের গাফিলতিতে বন্ধ বিদ্যালয় ভবণ ও রাস্তার নির্মাণ কাজ

  • বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ, ২০২৪
  • ১৭ বার পঠিত
Spread the love

শান্তিগঞ্জ প্রতিনিধি: ঠিকাদারের গাফিলতির কারণে বন্ধ রয়েছে শান্তিগঞ্জ উপজেলার উজানীগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,সদরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,বীরগাঁও পশ্চিম পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নির্মাণ কাজ। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কাজ বন্ধের বিষয়ে ঠিকাদারকে দুষছেন উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তর। উপজেলা এলজিইডি সূত্রে ও সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ৯৫ লক্ষ ৬৩ হাজার ১১ টাকা ব্যয়ে উজানীগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং ৩৪ লক্ষ ৭৮ হাজার ৮ শত ২ টাকা ব্যয়ে ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২২ সালে উজানীগাঁও ও ১১ ডিসেম্ভর ২০২১ সালে বীরগাঁও পশ্চিম পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাজ শেষ করার চুক্তিতে কাজ পায় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মাহবুব এন্টারপ্রাইজ এবং ৩২ লক্ষ ৮৭ হাজার ৪ শত টাকা ব্যয়ে ৩০ মে ২০২৩ সালে কাজ শেষ করার চুক্তিতে সদরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাজ পায় মেসার্স নুসি ওফ জেবি এন্টারপ্রাইজ। কাজ পাওয়ার পর উজানীগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পুরাতন ভবনটি ভেঙ্গে নতুন ভবনের ফাইলিংয়ের জন্য বিদ্যালয়ের সামনে বড় বড় কয়েকটি গর্ত করে কাজ ফেলে চলে যায় ঠিকাদার। এতে করে পূর্বের নির্মিত ছোট একটি ভবনে শিক্ষার্থীদের ক্লাস চললেও পর্যাপ্ত পরিমান ভবন না থাকায় দিনদিন শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। এদিকে একইভাবে বীরগাঁও পশ্চিম পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাজ শুরুর ৩ বছর অতিবাহিত হলেও নামমাত্র কাজ করে ফেলে রেখেছে ঠিকাদার। তেমনি সদরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের গ্রেডভীম পর্যন্ত কাজ হলেও অবশিষ্ট নির্মাণ কাজ ঝুলে রয়েছে। এতে করে যেমনিভাবে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে তেমনি এলাকায় সচেতন মহলের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। পাশাপাশি স্কুল মাঠে নির্মাণ সামগ্রী বছরের পর বছর পরে থাকার কারণে খেলাধুলা থেকেও বঞ্চিত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। ফলে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী কমে যাচ্ছে। এমতাবস্থায় বিদ্যালয়গুলোর শিক্ষা কার্যক্রম সচল রাখতে দ্রুত সময়ের মধ্যে ভবন নির্মাণ কাজ শেষ করার দাবি এলাকার অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের। বিদ্যালয়টির শিক্ষকগণ জানান, দীর্ঘ সময় যাবত বিদ্যালয়ের কাজ বন্ধ রয়েছে, কাজের কোন অগ্রগতি নেই। নানা সমস্যার কারণে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী কমে যাচ্ছে। অপরদিকে সদরপুর থেকে কামরুপদলং পর্যন্ত রাস্তার শেষ হলেও রাস্তার মাঝখানে ২ টি কালর্ভাটের উপর এবং রাস্তার মাথায় সিলেট সুনামগঞ্জ আঞ্চলিক সড়প পর্যন্ত প্রায় ১ শত ফুট রাস্তার আরসিসি ঢালাই না হওয়ায় বৃষ্টি বাদলের দিনে স্কুল কলেজে পড়ুয়া শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে এলাকার জনগনের চলাচলে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হবে বলে জানান এলাকাবাসী পাশাপাশি দ্রুত সময়ের মধ্যে রাস্তার কাজ সমাপ্ত করার দাবী ও জানান তারা। সদরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রুমা চক্রবর্তী ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম জানান, বিদ্যালয়ের ভবন নির্মাণে মেয়াদ অনেক পূর্বে শেষ হলেও ঠিকাদার শুধু গ্রেডভীম করে কাজ ফেলে রেখেছে। বারবার তাগিদ দেওয়ার পর কাজের কোন অগ্রগতি। তাই দ্রত কাজ শেষ করতে সরকারের উর্ধতন কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেণ তারা। এ বিষয়ে শান্তিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী আল নুর তারেক জানান, ঠিকাদারের গাফলতি ও দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতির কারণে বিদ্যালয়ের কাজগুলোর ধীরগতি। নির্মাণ কাজ দ্রত শেষ করতে ঠিকাদারকে লিখিত ও মৌলিক পত্র প্রেরণ করা হয়েছে। অল্প কিছু দিনের মধ্যে কাজ পুণরায় শুরু করবে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানগুলো। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুকান্ত সাহা জানান, বিদ্যালয়গুলোর কাজ দ্রুত শেষ করার জন্য ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে বারবার চাপ দেওয়া হচ্ছে। অল্প দিনের মধ্যে যদি কাজ শুরু না করে তাহলে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 


Spread the love
এই বিভাগের আরো খবর

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: জুনায়েদ চৌধুরী জীবন

© All rights reserved © সুনামগঞ্জ প্রতিদিন
Theme Customized BY LatestNews
error: Content is protected !!