1. newsjibon@gmail.com : adminsp :
বিশ্বম্ভরপুরে জামাইয়ের হাতে শশুর খুন - সুনামগঞ্জ প্রতিদিন
শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ১২:২৯ অপরাহ্ন

বিশ্বম্ভরপুরে জামাইয়ের হাতে শশুর খুন

  • মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৮৭ বার পঠিত
Spread the love

বিশেষ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার দিঘলবাক গ্রামে মেয়ের জামাইয়ের হাতে খুন হয়েছেন বৃদ্ধ শশুর। নিহতের নাম মো. আব্দুল মোতালেব (৫৫)। তিনি বিশ^ম্ভরপুর উপজেলার পলাশ ইউনিয়নের দিঘলবাক গ্রামের মৃত ছমেদ আলীর ছেলে।
মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার পাশর্^বর্তী সলুকাবাদ ইউনিয়নের মথুরকান্দি গ্রামের মৃত রইছ মিয়ার ছেলে মো.আব্দুস ছাত্তার দিঘলবাক গ্রামে গিয়ে শ^শুর বাড়ি থেকে তার স্ত্রী আখলিমাকে আনতে যায়। এসময় স্ত্রী আখলিমরা পিতা মো. আব্দুল মোতালেব মেয়েকে দিতে অসম্মতি জানালে ক্ষিপ্ত জামাই শ^শুরের গলা চেপে ধরে। তখল ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। শ^শুরকে হত্যা করে মো.আব্দুস ছাত্তার মোটর সাইকেলযোগে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন তাদের ধাওয়া করলে ও হত্যাকারীদের আটক করতে পারেননি।
স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ২০১২ সালে মথুরকান্দি গ্রামের মৃত রইছ মিয়ার ছেলে মো. আব্দুস ছাত্তার একই উপজেলার পলাশ ইউনিয়নের দিঘলবাক গ্রামের মো. আব্দুল মোতালেব এর মেয়ে আখলিমা খাতুনকে বিয়ে করেন। বিয়ে পর তাদের সংসারে ৪টি ছেলে সন্তান জন্মগ্রহন করে এবং আখলিমা বর্তমানে আবারো ৭ মাসের অন্তসত্তা।
কিন্তু বিয়ের পর থেকে স্বামী আব্দুস ছাত্তার এক নারীর সাথে পরকিয়ায় জড়িয়ে পড়ে। এতে তার স্ত্রী আখলিমা খাতুন স্বামীকে বিভিন্নভাবে পরকিয়া থেকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করে। এতে আখলিমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে শারীরিক নির্যাতন চালাতো পাষন্ড স্বামী আব্দুস ছাত্তার। এভাবে স্ত্রী আখলিমা খাতুনের উপর নানা অযুহাতে নির্যাতনের স্ট্রীমরোলার চলতে থাকে। এক পর্যায়ে গত এক সপ্তাহ পূর্বে স্ত্রী আখলিমা খাতুনকে শারীরিক নির্যাতন করে বাড়ি থেকে বের করে দিলে আখলিমা নিরুপায় হয়ে বাবার বাড়িতে আশ্রয় নেন। মঙ্গলবার গভীর রাতে শ^শুর বাড়ি থেকে স্ত্রী আখলিমাকে আনতে গেলে শ^শুরের সাথে মেয়ের জামাই মো. আব্দুস ছাত্তার বাক-বিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে শ^শুরের উপর হামলা করলে ঘটনাস্থলেই শ^শুর মো. আব্দুল মোতালেবের মৃত্যু হয়।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মো. আব্দুস ছাত্তারের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।
পলাশ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সোহেল আহমদ যুগান্তরকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আব্দুস ছাত্তার ও আকলিমাদের বাড়ি প্রায় পাশাপাশি। সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে টার দিকে আব্দুস ছাত্তার তার স্ত্রী আকলিমাকে নিয়ে আসতে যায়। এত রাতে সে আসতে অসম্মতি জানায়। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আকলিমার বাবাও রাতে মেয়েকে দিতে আপরগতা জানান। এ নিয়ে বাক-বিতন্ডার এক পর্যায়ে মেয়ের জামাই আব্দুস ছাত্তার ক্ষিপ্ত হয়ে শ^শুরের উপর হামলা করলে ঘটনাস্থলেই তার (মো. আব্দুল মোতালেব) মৃত্যু হয়।
এ ব্যাপারে বিশ^ম্ভরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম হত্যাকান্ডের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের পর দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।


Spread the love
এই বিভাগের আরো খবর

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: জুনায়েদ চৌধুরী জীবন

© All rights reserved © সুনামগঞ্জ প্রতিদিন
Theme Customized BY LatestNews
error: Content is protected !!