1. newsjibon@gmail.com : adminsp :
দোয়ারাবাজারে কাঁচা রাস্তার বেহাল দশা আশ্বাস আছে, বাস্তবায়ন নেই - সুনামগঞ্জ প্রতিদিন
মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৪:১৫ পূর্বাহ্ন

দোয়ারাবাজারে কাঁচা রাস্তার বেহাল দশা আশ্বাস আছে, বাস্তবায়ন নেই

  • বুধবার, ২৬ জুলাই, ২০২৩
  • ১১৯ বার পঠিত
Spread the love

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি: তিন কিলোমিটার রাস্তা একেবারে কাঁচা। রাস্তা বললেও ভুল হবে। অনেকটা ধান রোপণ করার উপযোগী ক্ষেতের মতো। গাড়ি দূরে থাক, হেঁটে চলাচল করাই মুশকিল। তার পরও প্রয়োজনের তাগিদে ওই রাস্তা দিয়েই চলাচল করতে হচ্ছে স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসার ছাত্রছাত্রীসহ গ্রামবাসীকে। এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে চরম ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের পালইছড়া, বাঘমারা ও বিখারগাও এলাকাবাসী।
পালইছড়া-বাঘমারা রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীসহ এলাকার শত শত লোকজনকে মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হয়। সামান্য বৃষ্টিতে রাস্তাটি হয়ে উঠে কাদাপূর্ণ।বর্তমানে মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে এই রাস্তা দিয়ে স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীসহ এলাকার শত শত স্থানীয় জনসাধারণ চলাচল করছেন। অন্যদিকে এলাকার মানুষের শিক্ষা, চিকিৎসা, চাকরি ও ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে এই রাস্তাটি অতি গুরুত্বপূর্ণ। দ্রুত রাস্তাটি পাকাকরণের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়,১নং বাংলাবাজার ইউনিয়নের পালইছড়া, বাঘমারা ও বিখারগাও গ্রামের চলাচলের একমাত্র রাস্তাটি বাংলাবাজার-পাইকপাড়া সড়ক হতে পালইছড়া গ্রামে হয়ে বাঘমারা-পাইকপাড়া রাস্তার ধরমপুর মসজিদের সামনে মিলিত হয়েছে। একটু বৃষ্টিতে কর্দমাক্ত ও পিচ্ছিল কাঁচা রাস্তাটিতে বড় বড় গর্ত থাকায় খালি পায়ে পথ চলতে হচ্ছে পথচারীদের। এছাড়া জরুরী কাজে ব্যবহৃত মোটরসাইকেল, ভ্যানগাড়ী প্রায়ই খানাখন্দে আটকা পড়তে দেখা যায়। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা সদরসহ এলাকার বিভিন্ন হাট-বাজারে যোগাযোগ ক্ষেত্রে কোমলমতি ছাত্রছাত্রীসহ এলাকাবাসীর একমাত্র ভরসা হচ্ছে ওই কাঁচা রাস্তাটি। কিন্তু মাত্র ৩ কিলোমিটার কাঁচা সড়ক পাকাকরণ না করায় চরম দুর্ভোগে পড়েছেন গ্রামবাসী।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানান কাঁচা রাস্তা সামান্য বৃষ্টি হলেই একেবারে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ে। বৃষ্টির ফোটা পড়ার পরেই কাঁদা পানিতে একাকার হয়ে যায়। প্রচণ্ড এ কাঁদায় চলতে গিয়ে অনেকেই পা পিছলে পড়ে গিয়ে গন্তব্যে যাবার আগেই বাড়িতে ফিরে আসতে বাধ্য হন। শিক্ষার্থীরা সময় মতো স্কুল কলেজে যেতে পারে না।
মানুষকে পড়তে হচ্ছে চরম দুর্ভোগে। এ দুর্ভোগ থেকে মুক্তির আশায় বছরের পর বছর ভোগান্তির স্বীকার এসব এলাকার জনসাধারণ সংসদ সদস্য উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউপি চেয়ারম্যান এবং স্থানীয় মেম্বারের কাছে আবেদন জানালেও সড়কের কোনো উন্নয়ন হয়নি। এ রাস্তাটি মানুষের চলাচলে জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই রাস্তাটি পাকা করণে ছাতক-দোয়ারাবাজার আসনের সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক এমপিসহ জনপ্রতিনিধি ও উপজেলা প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।
দোয়ারাবাজার উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) প্রকৌশলী মো:মনছুরুল হক মুঠোফোনে জানান, রাস্তাটি খোঁজ নিয়ে দেখবো।


Spread the love
এই বিভাগের আরো খবর

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: জুনায়েদ চৌধুরী জীবন

© All rights reserved © সুনামগঞ্জ প্রতিদিন
Theme Customized BY LatestNews
error: Content is protected !!