1. newsjibon@gmail.com : adminsp :
জামালগঞ্জ-সাচনা বাজার দিয়ে সুরমা সেতু নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন - সুনামগঞ্জ প্রতিদিন
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:২১ পূর্বাহ্ন

জামালগঞ্জ-সাচনা বাজার দিয়ে সুরমা সেতু নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন

  • বুধবার, ১৭ মে, ২০২৩
  • ১৬৮ বার পঠিত
Spread the love

জামালগঞ্জ প্রতিনিধি: “সাচনা- জামালগঞ্জ ব্রীজ কার জন্য,যদি জনগনের জন্য হয় তা হলে সঠিক জায়গায় নির্মান চাই” এই দাবী নিয়ে সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলা সদরে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
আঞ্চলিক মানবাধিকার সংগঠন সুপার সিক্সটি’র আয়োজনে সোমবার দুপুরে জামালগঞ্জ উপজেলা পরিষদ গেইটের সামনের সড়কে ঘন্টা ব্যাপী অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সুপার সিক্সটির প্রধান উপদেষ্টা বিশিষ্ট সমাজ সেবক কমরেড তারেক আল-মঈন।
সুপার সিক্সটির সাচনাবাজার ইউনিয়ন টিম লিডার তোফাজ্জল হোসেন এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, সমন্বয়কারী এম এইচ তাহের আহম্মদ, জামালগঞ্জ উপজেলা প্রতিবন্ধি সমিতির সভাপতি মো:আবুল কাশেম তালুকদার, সেতুবন্ধন সমাজ কল্যান পরিষদের উপদেষ্টা নূর আহম্মদ ও সভাপতি রুবেল আহমদ, সহ-সভাপতি তারেক আহম্মদ তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়া উদ্দিন সোহেল। ফতেহপুর সমাজ কল্যান পরিষদের সভাপতি মতিউর রহমান, সুপার সিক্সটি ফেনার বাঁক ইনিয়ন টিম লীডার আবতাহিনুর নুর খান উদয়, রাহাত আলম প্রমুখ।
মানব বন্ধনে জামালগঞ্জ উপজেলার সাচনা বাজার ইউনিয়নের সেতুবন্ধন সমাজ কল্যান পরিষদ, ফতেহপুর সমাজ কল্যান পরিষদ, স্বপ্ননীড় সমাজ কল্যান পরিষদের সদস্যবৃন্দ ও উপজেলার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার লোকজন একাত্মতা পোষন করে এতে অংশগ্রহণ করেন। মানববন্ধনে বিভিন্ন প্লে-কার্ডে লিখা ছিল, সঠিক জায়গায় ব্রীজ নির্মান চাই, আমাদের দাবী একটাই সঠিক জায়গায় ব্রীজ চাই ইত্যাদি।
বক্তারা বলেন, জামালগঞ্জ- সাচনাবাজার ব্রীজ নির্মাণের দাবী নিয়ে স্বাধীনতা পরবর্তী এখন পর্যন্ত দাবী উথ্বাপন ও বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হচ্ছে। নিকট অতীতে বেশ কয়েক দফা মাটি পরীক্ষা করা হয়েছে সাচনা বাজার- জামালগঞ্জ খাদ্য গুদামের পাশে তেলিয়া গ্রাম হয়ে। আবার সাচনা বাজার মফিজ নগর হয়ে শাহাপুর বাঁধ বাজারে। এখন নতুন করে মাটি পরীক্ষা করা হচ্ছে সাচনাবাজার থেকে প্রায় হাফ কিলো:মিটার দূরে; উত্তর কামলাবাজ-দক্ষিন কামলাবাজ দিয়ে। কিন্তু জামালগঞ্জবাসীর স্বপ্ন ও দাবী হলো জামালগঞ্জ- সাচনাবাজার দিয়ে সুরমা নদীতে ব্রীজ তৈরী করা। তা না হলে; জনসাধারণের দীর্ঘ বছরের দাবীপুরণ ভেস্তে যাবে। স্থান নির্ধারণে ভুল হলে সরকারের কোটি-কোটি টাকা ব্যয়ে এই ব্রীজ তৈরীর কোন সুফল পাবেনা উপজেলাবাসী। কামলাবাজ দিয়ে ব্রীজ তৈরী হলে, বিশেষ করে উপজেলার বৃহৎ জনগোষ্ঠী ফেনারবাঁক, ভীমখালী, সাচনা বাজার, বেহেলী ও আংশিক সদর ইউনিয়নগুলোর (৫- ইউনিয়নবাসী) জনসাধারণের সেতুবন্ধন হবেনা। তাদের প্রতিনিয়ত চলাচলে ও মৌলিক কাজে কোন উপকার পাবেননা। মানুষের মৌলিক অধিকার ও চাহিদা পুরণে উপজেলাবাসী সদর শহরে ও সাচনা বাজার সুরমা নদীতে ব্রীজ তৈরীর মাধ্যমে সেতুবন্ধন চায়।
উপজেলার হাজার-হাজার মানুষ প্রতিদিন খেয়া নৌকায় নদী পাড়াপাড় হন সাচনাবাজার-জামালগঞ্জে। এতে করে মানুষের জীবনের চরম ঝুঁকি থেকে যায়। জনগণের লাখ-লাখ টাকা যাচ্ছে সরকারের কোষাগারে। স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা সকাল বিকাল, বিশেষ করে বর্ষায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নদী পাড় হয়। জামালগঞ্জ-সাচনাবাজারে ব্রীজ নির্মাণ হলে সুরমা নদী পাড়াপাড়ে মানুষের মৃত্যুর ঝুঁকি অনেকটাই কমে যাবে। কিন্তু দুই কামলাবাজ দিয়ে ব্রীজ তৈরী হলে নদী পাড়াপাড়ে জামালগঞ্জবাসীর আ-জীবন খেয়া পাড়াপাড়ের চরম দুর্ভোগ আর দুর্দশা থেকে মুক্তি পাবেনা।
একনেকে ব্রীজটি পাশ হওয়ায়, উপজেলাবাসী স্বপ্ন দেখেন, হয়তো এক দিন ব্রীজ তৈরী সত্যি হবে। এতে সরকারের যথাযত কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান মানববন্ধনের বক্তারা।
যদি দুই কামলাবাজ দিয়ে ব্রিজ হয়, তা হলে জামালগঞ্জবাসীর দুর্ভোগ কমবে না। বিশেষ করে- উপজেলা সদরে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের যাতায়াত, স্বাস্থ্যসেবা ও হাট-বাজারে নিত্য দিন যাতায়াতে স্থানীয়দের উৎপাদিত পন্য পরিবহনে বিড়ম্বনায় পড়বে উপজেলাবাসী। এ সব বিভিন্ন কারনে জনগনের সুবিধা-অসুবিধা বিবেচনা করে সুদুর প্রসারী পরিকল্পনায় “জামালগঞ্জ-সাচনা বাজার সুরমা সেতু” নির্মাণের জন্য সরকারের কাছে জোর দাবী ও সুনজর প্রত্যাশা করছেন জামালগঞ্জের লাখো মানুষ।


Spread the love
এই বিভাগের আরো খবর

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: জুনায়েদ চৌধুরী জীবন

© All rights reserved © সুনামগঞ্জ প্রতিদিন
Theme Customized BY LatestNews
error: Content is protected !!