শিরোনাম
  জামালগঞ্জে বিএনপি নেতা এমদাদুল হক আফিন্দীর নামে চাঁদাবাজির অভিযোগ :       জামালগঞ্জে হাওরে মাছের আকাল, চাষের মাছই ভরসা       ছাতক পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগে আদালতে মামলা       দিরাইয়ে মডেল মসজিদের নির্মাণ কাজে ধীরগতি       আজ পহেলা সেপ্টেম্বর রানীগঞ্জ গণহত্যা দিবস       খানাখন্দে ভরা জামালগঞ্জ কারেন্টের বাজার সড়ক,ভোগান্তি অর্ধলক্ষ মানুষের       শ্রীরামসী গণহত্যা দিবস পালিত       এক হাজার পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার প্রদান করলেন মুকুট       তাহিরপুরে শহীদ সিরাজের সমাধিতে এমপি সহ নেতাকর্মীদের দোয়া       সুনামগঞ্জের সম্ভাবনাময় পর্যটন নিয়ে সরকার ব্যাপক আন্তরিক পর্যটন সচিব    


রাজধানী ঢাকার কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে মুখর দেশের শিক্ষাঙ্গন। গতকাল বুধবার জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ, বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন পালন করা হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারা দেশে। সামাজিক পরিসরেও প্রতিবাদ অব্যাহত রয়েছে। এমন পরিস্থিতির মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে মঙ্গলবার গাজীপুর থেকে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। গতকাল বুধবার ভোরে তাকে ধর্ষণকারী হিসেবে শনাক্ত করেছেন ছাত্রী। ঘটনা তদন্তে এই গ্রেপ্তারকে এক ধাপ অগ্রগতি বলা যেতে পারে।

দুঃখজনক হলেও সত্য, দেশে নারী নির্যাতন, নারীর বিরুদ্ধে সহিসংতা বাড়ছে। মহিলা পরিষদের তথ্য অনুযায়ী গত বছর মোট চার হাজার ৬২২ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার হয়েছে। ধর্ষণের শিকার হয়েছে এক হাজার ৭০৩ জন। ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে ৭৭ জনকে। ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে ২৪৫ জনের সঙ্গে। গত এক বছরে সংঘটিত ধর্ষণের ঘটনা ২০১৭ ও ২০১৮ সালের চেয়ে বেশি। সংগঠনটি জানায়, গত বছর এসিড সন্ত্রাসের শিকার হয়েছে ২৪ জন; অগ্নি সন্ত্রাসের শিকার হয়েছে ৫১ জন; অপহরণের শিকার হয়েছে ১৪৭ জন; অপহরণের চেষ্টা করা হয়েছে ১১ জনকে; ১৭ জন নারী ও শিশুকে পাচার করা হয়েছে, তাদের মধ্যে সাতজনকে যৌনপল্লীতে বিক্রি করা হয়। একই সময়ে বিভিন্ন কারণে ৬৩২ জন নারী ও কন্যাশিশুকে হত্যা করা হয়েছে; উত্ত্যক্ত করা হয়েছে ১০৪ জনকে, এ কারণে আত্মহত্যা করেছে ১৭ জন। গত বছর নির্যাতনের কারণে ২৬৪ জন আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছে; ফতোয়ার শিকার হয়েছে ২৪ জন। নির্যাতন অব্যাহত রয়েছে। অতি সম্প্রতি ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে, রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে পৌর কাউন্সিলরের বাড়িতে স্কুলছাত্রীকে ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে সাত বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ এবং ফরিদপুরের চরভদ্রাসনে এক কিশোরী ও ঢাকার সাভারে এক গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়, নারীর উন্নয়নে-ক্ষমতায়নে অনেক কিছু করা হয়েছে। অনেক অগ্রগতি হয়েছে বটে, কিন্তু নারীর সমানাধিকার ও নিরাপত্তা নিশ্চিত হয়নি। পরিস্থিতি বলে, নারীর নিরাপত্তা খুবই নাজুক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর ধর্ষণের শিকার হওয়ার ঘটনাসহ সাম্প্রতিক ঘটনাবলি নারীর উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। সমাজে, বিশেষত নারীসমাজে স্বস্তি নেই। ভারতের দিল্লিতে সাত বছর আগে মেডিক্যালের ছাত্রী নির্ভয়াকে ধর্ষণ ও হত্যায় জড়িতের ফাঁসির আদেশ হয়েছে। বাংলাদেশেও সাম্প্রতিক সময়ে নারী নির্যাতনের কিছু ঘটনার বিচার হয়েছে; কিন্তু সম্পূর্ণ নিষ্পত্তি এখনো অনেক দূর। বিচারহীনতার কারণে নারীর প্রতি সহিংসতা বাড়ছে বলে বিশেষজ্ঞদের অভিমত। দ্রুত বিচার সম্পন্ন করতে এরই মধ্যে বিশেষ আদালত গঠনের দাবি উঠেছে। ধর্ষণের সাজা মৃত্যুদণ্ড করার দাবিও উচ্চারিত হচ্ছে। যে হারে ধর্ষণের ঘটনা বাড়ছে, তাতে এসব বিষয় বিবেচনার দাবি রাখে।




১৮ কিলোমিটার ফ্লাইওভার নির্মাণ করে সুনামগঞ্জের সাথে ধর্মপাশার যোগাযোগ স্থাপন করা হবে : পরিকল্পনা মন্ত্রী

তাহিরপুরের সাবেক এমপি কালিচরন মুচির পরিবারে এখনও টিকে আছে নাগরী ভাষা

বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির প্রতিবাদ-বিক্ষোভ

আমলাদের ‘পাছায় লাথি’ ফর্মুলায় দুঃস্থ তালিকা

গরু চুরির প্রতিবাদ করতে গিয়ে জামালগঞ্জে দুই পক্ষের সংঘর্ষ। আহত ৪।

আওয়ামীলীগের ৬ইউনিটের সম্মেলন প্রস্ততি কমিটি দলকে গতিশীল করতে করা হয়েছে

২০ ফেব্রুয়ারি পরিকল্পনা মন্ত্রীর দিরাই সফর নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত আ.লীগ,দেখানো হতে পারে কালো পতাকা

সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালের প্রধান সহকারী ইকবাল ও তার স্ত্রীর সম্পদের উৎস কোথায় ?

সুনামগঞ্জ সরকারী কলেজ পুনর্মিলনী : সদস্যসচিব এর বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অভিযোগ দায়ের

এমপিরা অতঃপর ‘স্যার’ বলবেন ডিসিদের !!

error: Content is protected !!