শিরোনাম
  আদালতের ব্যতিক্রমী রায়: সংশোধনের জন্য ৭০ শিশুকে দেয়া হয়েছে মা-বাবার জিম্মায়       পাইলগাঁও ইউনিয়নে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীদের প্রচারণায় ব্যস্ত       জামালগঞ্জে দুর্গাপূজায় ইউপি নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ       সুনামগঞ্জে শ্রমিকলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত       জগন্নাথপুরে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার       বিমানবন্দরে সংবর্ধিত হলেন জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মতিউর রহমান       সুনামগঞ্জে আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস পালন করেছে এনজিও সংস্থা পদক্ষেপ       ধর্মপাশায় সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নে প্রার্থী বাছাইয়ে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত, জনপ্রীয়তায় শীর্ষে মোকাররম       সুনামগঞ্জের নুরুজপুরে যুবকের ৪ খন্ড লাশ উদ্ধার       সুনামগঞ্জে শিশু ধর্ষণ মামলায় একজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড    


প্রতিদিন প্রতিবেদক: মা-বাবার সেবাযত্নসহ ছয় শর্ত পালন সাপেক্ষে ৫০ মামলায় লঘু আপরাধে অভিযুক্ত ৭০ শিশুকে সংশোধনের সুযোগ দিয়ে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। সুনামগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জাকির হোসেন বুধবার ( ১৩ অক্টোবর) দুপুরে ব্যতিক্রমী এ রায় প্রদান করেন।
মুক্তির দেয়ার পর তাদের প্রত্যেককে একটি করে ডায়েরি ও ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়। এ সময় ৭০ শিশুর মা-বাবা ও স্বজনরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।
আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট নান্টু রায় যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘সুনামগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে ৫০ মামলায় কোমলমতি ৭০ শিশুকে পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে জড়ানো হয়েছিল। এসব শিশুরা আদালতে নিয়মিত হাজিরা দিতে হত। ফলে শিশুদের ভবিষ্যৎ ও শিক্ষা জীবন ব্যাহত হচ্ছিল। এসব মানবিক দিক বিবেচনা করে আদালত ছয় শর্ত যথাযথভাবে পালন সাপেক্ষে তাদের মুক্তি প্রদান করেছেন। নিঃসন্দেহে এটি একটি ব্যতিক্রমী রায়। এর মাধ্যমে ৭০ টি শিশু মা-বাবার জিম্মায় থেকে নিজেদের সংশোধনের সুযোগ পেল’।
আদালতের দেয়া শর্তগুলো হলো- প্রতিদিন দুটি ভাল কাজ করে আদালতের দেওয়া ডায়েরিতে লিখে রাখতে হবে এবং বছর শেষে ডায়েরি আদালতে জমা দিতে হবে। মা-বাবা ও গুরুজনদের আদেশ মানতে হবে, তাদের সেবাযতœ ও কাজে সাহায্য করতে হবে। নিয়মিত ধর্মগ্রন্থ পাঠ ও ধর্মকর্ম পালন করতে হব। অসৎ সঙ্গ ত্যাগ করতে হবে,মাদক থেকে দূরে থাকতে হবে এবং ভবিষ্যতে কোন অপরাধের সাথে নিজেকে জড়ানো যাবে না।
এসব শর্ত যথাযথভাবে পালন হচ্ছে কিনা তা আগামী এক বছর একজন প্রবেশন কর্মকর্তা পর্যবেক্ষণ করবেন এবং প্রতি তিনমাস অন্তর অন্তর আদালতকে অবহিত করবেন।
এ বিষয়ে প্রবেশন কর্মকর্তা মো. সফিউর রহমান যুগান্তরকে বলেন, যে ছয় শর্তে শিশুদের মুক্তি দেওয়া হয়েছে সেগুলো তারা সঠিকভাবে পালন করছে কী-না সেটি আমি দেখবো। পরে আদালতে সে বিষয়ে রিপোর্ট জমা দেবো।
আদালতের এমন রায়ে অভিভাবকরা সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। এমন উদ্যোগের ফলে পরিবারের সান্নিধ্যে এসব কোমলমতি শিশুরা স্বাভাবিকভাবে বেড়ে ওঠবে এবং সুন্দর জীবন গঠনের সুযোগ পাবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন বরণ করতে আসা অভিভাবকরা।
সুনামগঞ্জের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এডভোকেট খায়রুল কবির রুমেন এ রায়কে একটি ঐতিহাসিক রায় উল্লেখ করে বলেন, সুনামগঞ্জের বিচার বিভাগ নিয়ে আমরা গৌরববোধ করি এজন্য যে, আমাদের বিজ্ঞ বিচারকরা যেকোন মামলায় মানবিক বিষয়গুলো চুলচেরা বিশ্লেষণ করে গভীর পর্যবেক্ষণের পর রায় দেন। কোমলমতি শিশুদের কে মা-বাবার জিম্মায় মুক্তি প্রদান একটি মানবিক উদ্যোগ।




আদালতের ব্যতিক্রমী রায়: সংশোধনের জন্য ৭০ শিশুকে দেয়া হয়েছে মা-বাবার জিম্মায়

পাইলগাঁও ইউনিয়নে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীদের প্রচারণায় ব্যস্ত

জামালগঞ্জে দুর্গাপূজায় ইউপি নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ

সুনামগঞ্জে শ্রমিকলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

জগন্নাথপুরে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার

বিমানবন্দরে সংবর্ধিত হলেন জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মতিউর রহমান

সুনামগঞ্জে আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস পালন করেছে এনজিও সংস্থা পদক্ষেপ

ধর্মপাশায় সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নে প্রার্থী বাছাইয়ে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত, জনপ্রীয়তায় শীর্ষে মোকাররম

সুনামগঞ্জের নুরুজপুরে যুবকের ৪ খন্ড লাশ উদ্ধার

সুনামগঞ্জে শিশু ধর্ষণ মামলায় একজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

১৮ কিলোমিটার ফ্লাইওভার নির্মাণ করে সুনামগঞ্জের সাথে ধর্মপাশার যোগাযোগ স্থাপন করা হবে : পরিকল্পনা মন্ত্রী

তাহিরপুরের সাবেক এমপি কালিচরন মুচির পরিবারে এখনও টিকে আছে নাগরী ভাষা

বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির প্রতিবাদ-বিক্ষোভ

আমলাদের ‘পাছায় লাথি’ ফর্মুলায় দুঃস্থ তালিকা

গরু চুরির প্রতিবাদ করতে গিয়ে জামালগঞ্জে দুই পক্ষের সংঘর্ষ। আহত ৪।

আওয়ামীলীগের ৬ইউনিটের সম্মেলন প্রস্ততি কমিটি দলকে গতিশীল করতে করা হয়েছে

২০ ফেব্রুয়ারি পরিকল্পনা মন্ত্রীর দিরাই সফর নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত আ.লীগ,দেখানো হতে পারে কালো পতাকা

সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালের প্রধান সহকারী ইকবাল ও তার স্ত্রীর সম্পদের উৎস কোথায় ?

সুনামগঞ্জ সরকারী কলেজ পুনর্মিলনী : সদস্যসচিব এর বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অভিযোগ দায়ের

এমপিরা অতঃপর ‘স্যার’ বলবেন ডিসিদের !!

error: Content is protected !!